Breaking News
Home >> Breaking News >> ছেলের হাতে খুন হতে হল মাকে, কিন্তু কেন? পড়ুন সেই মর্মান্তিক ঘটনা

ছেলের হাতে খুন হতে হল মাকে, কিন্তু কেন? পড়ুন সেই মর্মান্তিক ঘটনা

নিজস্ব সংবাদদাতা, বর্ধমান: ছেলের হাতে খুন হল মা। মৃতের নাম জ্যোৎস্না সিং(৫০)। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের রায়নায়। ঘটনার জেরে আটক করা হয়েছে ছেলেকে। তাকে এদিন আদালতে তোলা হয়েছে।

জানা গেছে, রায়না থানা অন্তর্গত নাড়ুগ্রাম অঞ্চলের সিপ্টা গ্রামে গতকাল রাত্রে বসুদেব সিং মদ্যপান করে বাড়িতে এসে প্ৰথমে দাদুর কাছে টাকা চায়। দাদু টাকা না দেওয়াতে দাদুর উপর চড়াও হয় নাতি। সেই কান্ড দেখে থাকতে না পেরে মা জ্যোৎস্না সিং ছেলেকে ঝাঁটা দিয়ে মারতে থাকে। এরপরেই দাদুকে ছেড়ে মাকে মারধর শুরু করে ছেলে বদুদেব সিং। মাকে টেনে গ্রামের ঢালায়ের রাস্তায় আছাড় মারা হয়। ঘটনাস্থলেই মারা যায় জ্যোৎস্না দেবী। উলেখ্য সরকারী আবাস যোজনার এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা পেয়ে ঘর করছিলেন জ্যোৎস্না সিং। সেই টাকার থেকেই কিছু টাকা চান ছেলে বসুদেব সিং। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, বসুদেব সিং এর স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় মাস ছয় আগে তারপর থেকে বাড়িতে এসে প্রায় দিনই মদ্যপ অবস্থায় বাড়িতে এসে অশান্তি করতো এবং প্রায়শই টাকা চাইতো, আর সেই নিয়ে বিবাদও লেগে থাকত প্রায়শই।
ঘটনার পর রাত্রীতে ছেলে বসুদেব সিংকে গ্রেফতার করে
রায়না থানার পুলিশ। বুধবার সকালে বসুদেবকে বর্ধমান আদালতে তোলা হয়। আদালতে সে জানায়, মাকে ঠেলে দেওয়াতেই এই ঘটনা ঘটেছে। খুন করার উদ্দেশ্য ছিল না।
মহিলার ভাই উত্তম ঘোষের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে রায়না থানার পুলিশ অভিযুক্ত ছেলে বসুদেব সিং কে গ্রেফতার করেছে । খুনের ধারায় মামলা রুজু করে বুধবার ধৃতকে পেশ করা হয় বর্ধমান আদালতে ।বিচারক ধৃতের জামিন নামাঞ্জুর করে জেল হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন । পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, বসুদেব সিং বেসরকারী যাত্রীবাহী বাসে খালাসীর কাজ করে ।

এছাড়াও চেক করুন

অস্থায়ী রুপে সরকারী স্বীকৃতি দেওয়ার দাবীতে সরব পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল অস্থায়ী শিক্ষাকর্মী ও শিক্ষক সমিতি

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ অস্থায়ী রুপে সরকারী স্বীকৃতি দেওয়ার দাবীতে সরব হল পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল অস্থায়ী শিক্ষাকর্মী …

Leave a Reply

Your email address will not be published.