স্বাধীনতা সংগ্রামী বীণা দাসের নামে বিশেষ পোস্টাল কভার প্রকাশিত হল কৃষ্ণনগরে

Advertisement

অর্ণব মজুমদার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, নদিয়াঃ মহাষ্টমীর দিনে এক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান আয়োজিত হল নদিয়ার কৃষ্ণনগরে। ভারত সরকারের ডাকবিভাগের আয়োজনে স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষে প্রকাশিত হল প্রখ্যাত স্বাধীনতা সংগ্রামী বীণা দাসের নামে বিশেষ পোস্টাল কভার। ওই বিশেষ পোস্টাল কভারের উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট সাহিত্যিক তমাল বন্দ্যোপাধ্যায়, নদিয়া নর্থ ডিভিশনের সুপারিনটেনডেন্ট অরূপ কুমার শীল, কলকাতা রিজনের পোস্ট মাস্টার জেনারেল নিরজ কুমার ও অ্যাসিসট্যান্ট ডিরেক্টর তুষার কান্তি চৌধুরী।


বীণা দাসকে ভারত সরকার পদ্মশ্রী দিলেও এতোদিনে তাঁর নামে কোনও স্মারক ডাকটিকিট ছিল না। এদিন তাঁর নামে স্পেশাল পোস্টাল কভার প্রকাশ করে ভারত সরকারের ডাক বিভাগ তাঁর প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা জানাল।
এমন একটি অনুষ্ঠান নদিয়ার কৃষ্ণনগরের মাটিতে আয়োজন করার জন্য ভারতীয় ডাকবিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিশিষ্ট সাহিত্যিক তমাল বন্দ্যোপাধযায় যিনি নিজেও একজন কৃষ্ণনগরের মানুষ।

Advertisement


তমাল বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বীনা দাসের উপর এই স্পেশাল পোস্টাল কভার প্রকাশ করার জন্য দুর্গাঅষ্টমীর মতো নারী শক্তির উদ্বোধনের দিনকে বেছে নেওয়া হয়েছে। সেজন্য আমি ভারতীয় ডাক বিভাগকে কৃতজ্ঞতা জানাই।


উল্লেখ্য, বীণা দাস একজন স্বাধীনতা সংগ্রামী, যিনি কলকাতা ইউনিভার্সিটি কনভোকেশন হলে তৎকালীন বাংলার গভর্নর স্ট্যানলি জ্যাকসনের উপর পরপর পাঁচটি গুলি চালিয়েছিলেন। তিনি ইচ্ছে করেই লক্ষ্যভ্রষ্ট করেছিলেন নিজের প্রত্যেকটি শট। কারণ তাঁর লক্ষ্য ছিল ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসনের ভিত্তিভূমিতে আঘাত করা , কোনও ব্যক্তিকে নয়।

Advertisement


প্রসঙ্গত উল্লেখযোগ্য, তাঁর জন্ম নদিয়ার কৃষ্ণনগরে এবং তিনি ছিলেন কটক র‍্যাভেনশ কলিজিয়েট স্কুলে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে অগ্নিমন্ত্রে দীক্ষিত করা মহান শিক্ষক বেণীমাধব দাসের কন্যা। বীণা দাসের জন্মের সময় বেণীমাধব বাবু বদলি হয়ে এসেছিলেন কৃষ্ণনগর কলিজিয়েট স্কুলে।

Advertisement