Breaking News
Home >> Breaking News >> যুবতীর কাতর আবেদন, আমার বাবার সঙ্গে দেখা হলে নিয়ে যেতে বলবেন

যুবতীর কাতর আবেদন, আমার বাবার সঙ্গে দেখা হলে নিয়ে যেতে বলবেন

দোলা চক্রবর্তী

স্নেহাশিস মুখার্জি, স্টিং নিউজ, নদিয়া :  চাকদার উত্তর ঘোষ পাড়ার মেয়ে দোলা চক্রবর্তীকে কেউ চেনেন ? জানেন তো ও আমাদেরকে বলেছে যে ও হালিশহর যদুনাথবাটিতে ক্লাস সেভেন পর্যন্ত পড়েছে। তারপর জেটিয়া বয়েজ স্কুল এ কো এডুকেশনে উচচ শিক্ষা লাভের জন্য পড়াশুনো করেছিল। সেখান থেকে ২০০০ সালে সেকেন্ড ডিভিশনে মাধ্যমিক পাস করে। ওর এখনও মনে আছে ও ‘সি’ সেকশনের ছাত্রী ছিল। ওর রোল নম্বর ছিল ২২। ওর বাবা শান্তিগোপাল চক্রবর্তী। কোন এক প্রাইভেটে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক । এক ভাই আছে কৌশিক চক্রবর্তী ব্যাবসা করে | তবে মায়ের নাম জিজ্ঞেস করতেই সলজ্জ নয়নে জিভ কেটে বললো মায়ের নাম বলতে আছে ? তবে আমাদের পীড়াপীড়িতে ও বলল ওর মার নাম নাকি খুকু | সে একজন গৃহবধূ | কিন্তু ওকে একবারো দেখতে আসে না | সেই আট বছর আগে ওকে একা ফেলে রেখে এখানে চলে গেছিল | মাঝে একবার এসছিল , আর আসে নি | পারবেন না আপনারা ওকে ওর বাবার সঙ্গে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে দিতে | ও কিন্তু এখন অনেকটাই সুস্থ হয়ে গেছে | নদিয়ার নাকাশিপাড়ার নির্মল হৃদ্য় সমিতির এখন ও একজন সদস্য | ওর এখন আর এখানে ভাল লাগে না |

তবে এখানকার কর্ণাধার মোসলেম মুন্সিকে ও কাকু বলে | ও আমাদের বললো কাকু খুব ভাল | মাঝে মাঝে কাজ না করলে বকা দেয় তবে আমাদের ভালোও বাসে | তবে আমার বাবার সঙ্গে দেখা হলে বলবেন আমার না, আমার বাবাকে আমার পরিবারকে খুব দেখতে ইচ্ছে করে | আমাকে যেন নিয়ে যায় | এরকমই আর একজন মানসিক ভারসাম্যহীন গৃহবধূ মুন্নি মুন্ডা | ও কিন্তু এবার বাড়ী যাবে | ঝারখন্ডের রাঁচি স্টেশন থেকে কাড্ডু সান্না গলিতে ওর বাড়ী | ওর স্বামি গৌতম মুন্ডা মুদিখানার দোকানে কাজ করে | কোন একদিন মানসিক ভারসম্যহীন অবস্থায় ট্রেনে চেপে ও বেথুয়াডহরী স্টেশনে চলে আসে | তারপর নাকশিপাড়া থানা ওকে তখন এই নির্মল হৃদ্য় সমিতির হাতে তুলে দেয় | ও এখন সুস্থ | ও আমাদেরকে বলেছে ওর না তিনটে ছোট ছোট মেয়ে আছে | প্রীতি , স্মৃতী , কৃতী | প্রীতি ক্লাস সিক্সে পরে , স্মৃতী ৩তে আর কৃতী এখনও স্কুলে যায় না | ওর এখানে থাকতে একদম ইচ্ছে করে না | ওর বাচ্চাদের জন্য ওর মন খুব খারাপ করে | তবে এখনকার ডাক্টার মোসলেম মুন্সীকে ও বাবা পাতিয়েছে | বলে বাবা খুব ভাল | বাবা খুব যত্ন করে | তবে নির্মল হৃদ্য় সমিতির সম্পাদক মোসলেম মুন্সী প্রশাসনের সদর্থক জবাব পাওয়ার পর ১ লা আগস্ট মুন্নী মুন্ডাকে আইনগতভাবে ওর পরিবারের হাতে তুলে দেবার জন্য ঝারখন্ডে গিয়েছিলেন বলে আমাদেরকে জানান |

আরও জানান যে ১৯৯২ সালে একজন মানসিক ভারসম্যহীন খাবারের জন্য এক দোকানে হাত পাতলে দোকানদার তাঁকে খাবারের বদলে গরম তেল হাতে ঢেলে দেয় | ওটা দেখে উঁনি সহ্য করতে না পেরে ঐ মানসিক ভারসম্যহীন ব্যক্তিকে সঙ্গে করে নিজের বাড়ীতে নিয়ে আসেন | তারপর তাঁকে হসপিটালে নিয়ে গিয়ে পুড়ে যাওয়া ঘায়ের চিকিৎসা করান | তারপর তাকে চুল দাড়ি কাটিয়ে সেবার মাধ্যমে অর্ধেক ভাল করে তোলেন | এরপর ৭ মাস ১১ দিনের মাথায় ঐ ব্যাক্তি তাঁর নিজের পরিচয় বলতে পারে | তিঁনি তখন দায়িত্ব নিয়ে তাকে বীরভূমে তাঁর বাড়ীর লোকের হাতে তুলে দেন | তখন থেকেই এই পথ চলার শুরু | সমাজ থেকে যারা বিচ্ছিন্ন , যাঁদের মাথা গোজার ঠাঁই টুকু পর্যন্ত ণেই , রাত দিন রাস্তায় পরে থাকে তাঁদের কথা ভেবেই আজ থেকে প্রায় ২৫ বছর আগে তিঁনি তৈরি করেছিলেন নদিয়ার নাকাশিপাড়ার বাদবিল্ল গ্রামে নির্মল হৃদ্য় সমিতি নামে একটি স্বেচছা সেবী সংগঠন | বর্তমানে তিঁনি নিজের পকেট থেকে পয়সা খরচ করে বিনামুল্যে মানসিক ভারসম্যহীন রোগীদের চিকিৎসা করে চলেছেন |

সরকারী সাহায্যের আবেদন করলেও এখন পর্যন্ত্য পাননি | বেশ কয়েক বছর আগে তৃনমূল সাংসদ তাপস পাল কিছু আর্থিক সাহায্য করেছিলেন | তবে সেটা যঠেষ্ট নয় | কল্যাণীর এলিনা সেন , উড়িষ্যার সুমিতা বোস , বাবলু দাশগুপ্ত , ডক্টর গৌতম ব্যানার্জী , সাইকোলোজিস্ট তটিনী ব্যানার্জী ও আরও অনেকে এই সংস্থাকে জামাকাপড় , চাল , ডাল এবং সর্বপরি টাকাপয়সা দিয়ে সাহায্য করেন বলে এঁদের প্রতি তিঁনি কৃতজ্ঞ | এই সমিতিতে ভবঘুরে মানসিক ভারসম্যহীন রোগীদের দেখাশোনার জন্য প্রচুর অর্থের প্রোয়োজন | এখানে তাঁদের খাওয়া থাকারও ব্যাবস্থা আছে | বর্তমানে রোগীর সংখ্যা ৬০ জন | তার মধ্যে ১৮ জন মহিলা | তাই সরকারী অনুদান ছাড়া এত বড় প্রচেষ্টা কখনই দীর্ঘ সময় ধরে চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয় | নদিয়া জেলা সভাধিপতি বাণী কুমার রায় জানান ওরা খুব ভাল কাজ করছে | আমরা জানি ব্যাপারটা | ওরা সরকারকে এ বিষয়ে দরখাস্তও করেছে | আমরা দেখছি যতোটা সম্ভব সরকারের তরফ থেকে তাঁদেরকে সাহায্য করার |

এছাড়াও চেক করুন

প্রতিবন্ধী অধিকার আইন ২০১৬ কার্যকর করবার দাবীতে আইন অমান্য কর্মসূচী

প্রতিবন্ধী অধিকার আইন ২০১৬ কার্যকর করবার দাবীতে বিক্ষোভ ও আইন অমান্য কর্মসূচী পালন করল পশ্চিমবঙ্গ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.