Breaking News
Home >> Breaking News >> নৈহাটিতে পুজোর উদ্বোধনে এসে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও ঐক্যের বার্তা দিলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

নৈহাটিতে পুজোর উদ্বোধনে এসে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও ঐক্যের বার্তা দিলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

সৈকত গাঙ্গুলী, ব্যারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটির বিজয়নগর সেবা সমিতির দুর্গা পুজোর উদ্বোধন করলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এবছর এই পুজো ৬৬ বছরে পদার্পন করল । পুজোর মন্ডপ সজ্জা সেজে উঠেছে পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের আদলে ।

শনিবার সন্ধ্যায় ফিতে কেটে ও প্রদীপ জ্বালিয়ে উদ্বোধন করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় । পুজোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পুজো মন্ডপে উপস্থিত ছিলেন নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, নৈহাটি পুরসভার পুরপ্রধান অশোক চট্টোপাধ্যায় সহ পুরসভার অন্যান্য জনপ্রতিনিধিরা । পুজোর উদ্বোধনে এসে পার্থ বাবু বলেন, ‘জেলাই শহরের ভিত্তি, জেলা না বাঁচলে শহরও বাঁচবে না । কলকাতায় এখন থিম পুজোর হিড়িক, তাই কলকাতার পুজো এখন আধুনিক হয়েছে । জেলার পুজোও সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে । উৎসবের দিন গুলোতে মানুষ মানুষকে মিলিয়ে দেয় । ফলে যার সঙ্গে কথা বলেননা, তার সঙ্গেও কথা বলুন । সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, ঐক্য বজায় রাখুন ।’ মায়ের কাছে পার্থবাবু প্রার্থনা করেন অশুভ শক্তি ধুয়ে মুছে শুভ শক্তি জাগ্রত হোক । রাজ্যবাসীকে পুজোর শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ।
সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন মায়ের কাছে আবেদন আমরা যেনো সবাই শান্তিতে থাকতে পারি সুখে থাকতে পারি অশুভ শক্তিকে পরাজিত করবার প্রার্থনা জানাই মাকে ।
অশুভ শক্তি যারা সমাজকে দ্বিখণ্ডিত করে যারা মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ করে তারাই অশুভ শক্তি ।
আমরা পূজো করি প্রান থেকে আমরা সবার মঙ্গল কামনা করি ।
দূর্গা পুজোর অনুদান নিয়ে মামলা প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে পার্থ বাবু বলেন যখন অন্য সম্পদায়কে টাকা দেওয়া হয় তখন বলে কেনো এই সম্পদায়কে দেওয়া হল আবার যখন দূর্গাপুজোর টাকা দেওয়া হচ্ছে তখন কোর্টে গিয়ে বলছে ওদের কেনো টাকা দেওয়া হচ্ছে ।
বহিরাগত দুষ্কৃতীদের রাজ্য প্রবেশ নিয়ে তিনি বলেন বাইরের রাজ্যের থেকে লোক আসছে ঝাড়খন্ড থেকে লোক আসছে ।
কারুর কোন অভিসন্ধিতে কাজ হবে না বৃষ্টি আটকাতে পারলো?
মুকুল রায় ও কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ফোনের রের্কড প্রকাশ্যে আসা নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন উন্মাদের কথা কেনো আলোচনা করছেন ও পুরোপুরি উন্মাদ যে নিজে কোন দিন ক্লাসের নির্বাচনে জেতেনি সে যদি পশ্চিমবঙ্গের ভাগ্য নির্ধারণ করে এতো উন্মাদরাও এমন করে না ।
হতাশা ওর কোন জায়গায় পৌঁছেছে জানি না যেখানে রোজ বলত তুই এই কর ওই কর সেই দাঁততো যেখানে গেছে তারা ভেঙে দিয়েছে এখন যতোটুকু আছে তাও ভেঙে যাবে ।
মুকুল রায় জানিয়েছিলেন লোকসভায় ২০টির বেশী আসন তৃনমুল পাবে না এটিকে কটাক্ষ করে পার্থবাবুর মন্তব্য অনেক পাগলই দাবি করে কিছু দিন পর দেখবেন রাস্তায় টিয়া পাখিরা কার্ড তোলে ওইটা দেখাচ্ছে জনতার মধ্যে নেই আদর্শের মধ্যে নেই জনপ্রিয়তাতে নেই এরা কি করে চলবে পাম্প দিয়ে বিড়ালকে তো আর সিংহ বানানো যায়না।

এছাড়াও চেক করুন

মনোনয়ন জমা দিলেন বিএসপি প্রার্থী অশোক কুমার মুর্মু

কার্তিক গুহ, ঝাড়গ্রাম : শনিবার দুপুরে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন বিএসপি প্রার্থী অশোক কুমার মুর্মু। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.