Breaking News
Home >> Breaking News >> ঘেনঘেনানি বৃষ্টি ফোঁটায় বেয়াব্রু প্রেম

ঘেনঘেনানি বৃষ্টি ফোঁটায় বেয়াব্রু প্রেম

কল্যাণ অধিকারী :

সকাল থেকে আকাশে অচেনা মেঘ। বৃষ্টি ভিজিয়েছে সেই বর্ষা বোধন করে। বসন্তের আগে শীতে শেষ বারের মতো গাছের কেয়া পাতা ভিজিয়ে নিয়েছে শরীর। তালদীঘির জলে ভেসে থাকা লাল শালুক ভিজে এক্কেবারে আটখানা।

এমন বৃষ্টি বাঙালি বসে থেকেছে কবে! জানালার কাঁচ ঠেলে ঢুকতে চাওয়া শীতল হাওয়া, ভিজিয়েছে দেরাকে রাখা পোস্ট কার্ড। নীল কালি লেখা সেদিনের ক’টা কথা ফিকে হবার উপক্রম। তবুও বৃষ্টির প্রথম অনুভূতি নিয়েছে। কবি মানুষ পেন খাতা ধরেছেন। আর আমি-আপনি পথের ধারে ঠায় দাঁড়িয়ে কখন যে আসবে বাস তার ই প্রকান্ড অপেক্ষা।

আজ ইচ্ছে করেনি কানে হেডফোন দিয়ে
গুলাম আলি’র গজল শুনতে। তন্ময় হয়ে শুনেছি বৃষ্টির খেয়াল তোলা উজানের সুর। মন কে সারাক্ষণ গুনগুন করে রেখেছে। লোকে বলছে আবারও একটা বাজে দিন। দিনান্তেও সেই একি ঘেনঘেনানি। ওরে বৃষ্টি এবার তো থাম! সত্যি সত্যি কাকভোর থেকে ঝরতে থাকা বৃষ্টি, প্রেম বিলাতে গিয়ে নাস্তানাবুদ করে দিয়েছে।

ইষ্টিশনে সেই ভিড় উধাও। মহিলাদের নিদিষ্ট স্থানে বসে সমৃদ্ধ আলোচনা আজ বন্ধ। মাতৃভূমি বেশ ফাঁকা। একজন হাবিলদার, ক’জন মহিলা পুলিশ গেটের সামনে দাঁড়িয়ে। মফস্বলে এগিয়ে চলা মেয়েদের রক্ষা কবচ হয়ে। অতনু দার চায়ের দোকানেও ঝাঁপ ফেলা। ঝুলছে শুধু হোল্ডার। লাইনে ভাঁড় ফেলবেন না লেখাটা অনেকদিন পর আজ বড্ড ভিজেছে।

চাকরি রক্ষার জন্য আত্মত্যাগ করা বাঙালি বিকেল চারটে বাজার আগেই কম্পিউটার লগ অফ করবার চেষ্টায়। ব্যাগ নিয়েই ট্রেনে উঠে পড়া। আজ আর জমিয়ে মুড়ি খাওয়া নেই। জমাটি সান্ধ্য আলোচনা স্থগিত। তারাতারি বাড়ি ফিরে নতুন আলু, ফুলকপি, কড়াইশুঁটি, মুগের ডাল, ডিম সহযোগে খিচুড়ি। হাপুসহুপুস করে খেয়ে শীতের রাতে নরম কম্বলে শরীর প্রবেশ।

আর ওরা! কত ইচ্ছে, কত স্বপ্ন বোনা রাস্তার ধারের অচেনা ফুল। ফুটবার আগেই বৃষ্টিতে ঝরে পড়েছে। ভোলেনি কিন্তু! মৃত্যুর আগে ছড়িয়েছে শেষ সুরভি। যাতে মেশা মাটি ভেজা স্বাদ।

এছাড়াও চেক করুন

পশ্চিম মেদিনীপুরের লোহাটিকরীতে উল্টে গেল একটি সরকারি বাস

কা‌র্তিক গুহ, ‌স্টিং নিউজ, পশ্চিম মেদিনীপুর :- পশ্চিম মেদিনীপুরের গুড়গুড়িপাল থানার অন্তর্গত লোহাটিকরীতে উল্টে গেল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.