Breaking News
Home >> Breaking News >> শীতকালীন বিশেষ সেমিনার বেলদা কলেজ এন এস এস ডিপার্টমেন্টে

শীতকালীন বিশেষ সেমিনার বেলদা কলেজ এন এস এস ডিপার্টমেন্টে

পশ্চিম মেদিনীপুর:- সাত দিনব্যাপী শীতকালীন বিশেষ শিবিরের সুচনা হল শুক্রবার।পরিবেশ বিষয়ক সচেতনতা মূলক কর্মসূচির আয়োজন করা হয় বেলদা কলেজ এন এস এস ডিপারমেন্ট এর পক্ষ থেকে।বেলদা কলেজের হলে আয়োজিত এই বিশেষ অনুষ্ঠানের সূচনা হয় প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে।

প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে মিনারের শুভ সূচনা করেন বেলুড় মঠের মহারাজ স্বামী যজ্ঞধারানন্দ।সাত দিন ধরে চলা এই শীতকালীন সেমিনারের প্রথম দিনে উপস্থিত ছিলেন খড়্গপুর বনবিভাগের অতিরিক্ত বন আধিকারিক আশিস মণ্ডল,উপস্থিত ছিলেন বেলদা কলেজের অধ্যক্ষ মানবেন্দ্র মন্ডল,বেলদা কলেজ এনএসএস বিভাগীয় প্রধান ড. লিপিকা মন্ডল সহ বেলদা কলেজের অধ্যাপকবৃন্দ।এই দিনের এই সেমিনারে উপস্থিত সমস্ত ব্যক্তিদের ফুলের গাছ এবং এন এস এস ক্লাবের মাধ্যমে বরণ করে নেওয়া হয়।

শীতকালীন এই বিশেষ শিবিরের প্রথম দিনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে খড়্গপুর বনবিভাগের অতিরিক্ত বন অধিকর্তা আশিস মণ্ডল বলেন-“পৃথিবীতে সর্বোৎকৃষ্ট জীব মানুষ।আমরাই পারি পরিবেশকে সুন্দর স্বচ্ছ রাখতে।আমরা জানি সব থেকে পবিত্র নদী গঙ্গা।কিন্তু ভাবতে অবাক লাগে নিজেরা নিজেদের রাজ্যের নদীকে প্রধান নদী কে পরিস্কার রাখতে পারছি না।আজকে বনের দলমা হাতি থেকে চিতাবাঘ বেরিয়ে আসছে লোকালয়ে।কারণ শুধু একটাই সেটা হলো আমাদের,মানুষের পর্যবেক্ষণ এর অভাব।

আর এন এস এস দলের কাজ হল সমাজসেবা।পড়াশোনা তো সবাইকে করতে হবে,কিন্তু প্রকৃতির সেবা,মানুষের সেবা,সমাজ সেবা, সবাইকে দায়িত্ব নিয়ে করতে হবে।তবেই ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুন্দর পৃথিবী উপহার দিতে পারি।”শীতকালীন বিশেষ সেমিনার এর উদ্বোধনী দিনে এনএসএস দলের পক্ষ থেকে বিশেষ উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করা হয়।এই দিনের বিশেষ অনুষ্ঠানের উদ্বোধক তথা বেলুড় মঠের মহারাজ স্বামী যজ্ঞধারানন্দ বলেন-“এন এস এস দলের প্রধান প্রতীক চিহ্ন চক্র।যার মধ্যে জীবন ক্রম, শৈলী সবকিছুই রয়েছে।বছরে শুধু একশো কুড়ি ঘন্টা দায়িত্ব নেওয়া নয়,এনএসএস ছাত্র-ছাত্রীদের দায়িত্ব নিতে হবে পরিবেশ সেবার।

তবেই হবে ঈশ্বর প্রাপ্তি।”৮ ই ফেব্রুয়ারি থেকে ১৪ ই ফেব্রুয়ারি চলবে বেলদা কলেজ এনএসএস বিভাগের স্বচ্ছ ভারত অভিযান।ছাত্র-ছাত্রীদের এন এস এর কাজ,বিভাগের গুরুত্ব সম্পর্কে বেলদা কলেজের অধ্যক্ষ মানবেন্দ্র মন্ডল জানান-“মানুষের ইচ্ছা শক্তি পারে সমস্ত কিছুর পরিবর্তন করতে।এন এস এস দলের প্রধান কাজ শুধু একশো কুড়ি ঘণ্টার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলে হবে না।আর শুধু এন এস এস দলের ছাত্র-ছাত্রীরাই জানবে তা নয়।এর গুরুত্ব নিজেকে শুধু প্রতিষ্ঠানের অঙ্গনে নয় প্রতিষ্ঠান বাইরে বিশেষ প্রভাব ফেলবে সাধারণ মানুষের মধ্যে।”সাত দিন ধরে চলা এই বিশেষ শিবিরে রয়েছে নানান ধরনের সামাজিক কাজ।বৃক্ষরোপণ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের মধ্যে মানবিক চেতনার পরিবর্তন সবকিছুর দায়িত্ব এনএসএস সদস্যদের।এন এস এস দলের বিভাগীয় প্রধান ড. লিপিকা মন্ডল জানিয়েছেন-“আমাদের কলেজে তিনজন প্রোগ্রাম অফিসার এবং তিনটি ইউনিট মিলিয়ে ৩০০ জন এন এস এর সদস্য।যেসব অঞ্চলে এখনো শিক্ষার আলো পৌঁছায় নি কিংবা পরিবেশ সম্পর্কে এতটা সচেতন নয়,আমরা সেইসব গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে সচেতন করছি এবং শিক্ষার আলো নিয়ে আসার চেষ্টা করছি।”
বেলদা কলেজ এনএসএস ডিপারমেন্ট দত্তক নিয়েছে দুটো গ্রাম।বিশেষ ভাবে পিছিয়ে পড়া ওই দুটো গ্রামে সচেতনতা বিষয়ক এবং পরিবেশ সম্পর্কে বিশেষ শিবিরের আয়োজন করা হবে এই স্বচ্ছ ভারত অভিযান সপ্তাহে।উপস্থিত ব্যক্তিদের পরিবেশ বিষয়ক বিশেষ আলোচনার মাধ্যমে এই দিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষ হয়।

এছাড়াও চেক করুন

দ্বিতীয় দফার ভোটে বাম প্রার্থী মহম্মদ সেলিমের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে

স্টিং নিউজ সার্ভিস: রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের ইসলামপুরের পাটাগড়ায় সিপিএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিমের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.