Breaking News
Home >> Breaking News >> রানিহাটিতে জাতীয় সড়কের উপর পরপর দুটি লরি দুর্ঘটনায় ভাঙল পুলিশ চৌকি ও দোকান মৃত্যু ১ মহিলার, আশঙ্কাজনক ৪

রানিহাটিতে জাতীয় সড়কের উপর পরপর দুটি লরি দুর্ঘটনায় ভাঙল পুলিশ চৌকি ও দোকান মৃত্যু ১ মহিলার, আশঙ্কাজনক ৪

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, হাওড়া : মঙ্গলবার ভোরে হাওড়ায় ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে রানিহাটি মোড়ের কাছে দুর্ঘটনার কবলে পরে দুটি লরি। ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় এক মহিলার। আহতের সংখ্যা ৪। আহতদের স্থানীয় গাববেড়িয়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুর্ঘটনাগ্রস্থ দুটি লরিকে আটক করেছে পাঁচলা থানার পুলিশ। চালক পলাতক।

ভোর থেকে ব্যস্ততা শুরু হয়ে যায় ৬ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর রানিহাটি মোড়জুড়ে। মাছের গাড়ি থেকে নামানো হয় মাছ। বিভিন্ন এলাকা থেকে উপস্থিত হয় মাছ ক্রেতারা। ভোরের আলো ফোঁটার আগে মাছ কিনে বাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় তারা। মঙ্গলবার ভোরে মাছ কিনতে বহু দূর থেকে আসে মাছ ক্রেতারা। তখনি পর পর দু’টি লরি দুর্ঘটনার কবলে পরে। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় এক মহিলা মাছ ক্রেতার।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার তখন ভোর ৫টা। একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুলিশের চৌকিতে ধাক্কা মারে। ওই সময় কোন পুলিশ কর্মী উপস্থিত না থাকায় আহত হয় নি। ঠিক সেই সময় ওই লরির পিছনে উলুবেড়িয়ার দিক থেকে আসা বালি ভর্তি অপর একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঝুপড়িতে ধাক্কা মেরে দোকানে ঢুকে যায়। লরির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় এক মহিলার। আহত হয় আরও চারজন। তাঁদের নিয়ে যাওয়া তিন কিমি দূরে গাববেড়িয়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। সেখানেই চলছে চিকিৎসা।

ব্যস্ত রানিহাটি মোড়ে সকাল থেকে শুরু হয় জাতীয় সড়কের গা ধরে বাজার বসে যাওয়া। তবে এ ক্ষেত্রে ভোরের দিকে হওয়ায় ভয়াবয়তা কম ছিল। তবুও মৃত্যু আটকানো যায় নি। এর আগে গত বছর নভেম্বর মাসে রানিহাটি মোড়ের পাশে গ্যাস ট্যাংকার দুর্ঘটনার কবলে পরে বিপত্তি ছড়ায়। সে বার জাতীয় সড়ক বন্ধ করে ট্যাংকারের লিক বন্ধ করা হয়। তার কিছু দিন পর রানিহাটি মোড়ে বালির লরি উলটে যায়। তবে এ দিনের ঘটনা শিহরন ছড়িয়েছে। বেলার দিকে হলে বহু মানুষের আহত ও মৃত্যু হওয়ার ঘটনা থেকে যেত পারতো। পুলিশের চৌকিতে কেউ না থাকায় পুলিশ কর্মীদের আহত হওয়ার খবর নেই।

প্রবীর সেনাপতি, রিজাউল আখতার, সেখ আনোয়ার সহ স্থানীয়দের কথায়, জাতীয় সড়কের উপর রানিহাটি মোড় সব সময় থাকে ব্যস্ত। রয়েছে সিগনালিং ব্যবস্থা। তবুও ভোরের দিকে গাড়ির গতি থাকে বেশি। নিয়ন্ত্রণ রক্ষার জন্য নজরদারি থাকে কম। ওই সুযোগে লরি দ্বিগুণ গতিতে ছুটে যায়। দুর্ঘটনা ঘটছে তবুও নিরাময় হচ্ছে না। এলাকায় ভোরের দিকে পুলিশি টহলদারির কথা জানিয়েছে এলাকাবাসী। ঘটনায় পাঁচলা থানার পুলিশ দুটি লরিকে আটক করেছে। যদিও চালকদের কোন খোঁজ নেই। ক্রেন এনে মোড় মাথার ঝুপড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে।

দুর্ঘটনা ঘটলে তবেই টনক নড়ে বাকি সময় যেই কে সেই। এটাই যেন বাস্তবে পরিণত জানাচ্ছে এলাকার স্থায়ী ব্যবসায়ীরা।

এছাড়াও চেক করুন

জঙ্গল মহলে ফের তৃণমূলে ভাঙন ধরালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ঝাড়গ্রাম:- বেলপাহাড়ির পর নয়াগ্রামে বিজেপিতে যোগ দিলেন কয়েকশো তৃণমূল ও সিপিএম কর্মী …

Leave a Reply

Your email address will not be published.