Breaking News
Home >> Breaking News >> নাকাশিপাড়ার গর্ব রচনা সরকার বিশ্বাস

নাকাশিপাড়ার গর্ব রচনা সরকার বিশ্বাস

নবেন্দু ভট্টাচার্য্য, স্টিং নিউজ করেন্সপন্ডেট, নাকাশিপাড়া, নদীয়া: জয়পুরের সাওয়াই মানসিং স্টেডিয়ামে বাজিমাত করলেন রচনা সরকার বিশ্বাস। জাতীয় স্তরের অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে তিনটি ইভেন্টে ১০০ মিটার দৌড়, জাভেলিন থ্রো, লঙজাম্প। দুটিতে প্রথম ও একটিতে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে সোনা ও রৌপ্য পদক পেয়ে দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছেন।

তপশীল সম্প্রদায়ের দরিদ্র ক্ষেতমজুর পরিবারে জন্ম বীরপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের দুর্গাপুরে ছিল তাদের বসবাস। বাবা আদিত্য বিশ্বাস ছোট থেকেই খেলাধুলার প্রতি ছিল তার আগ্রহ । দাদা অনুপ বিশ্বাস ছিল তার অনুপ্রেরণা । গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠ শেষ করে বেথুয়াডহরী মাতঙ্গিনী বালিকা বিদ্যালযয়ে ভর্তি হয়। অষ্টম শ্রেণী পাস করে বীরপুর ললিতা শ্রীকৃষ্ণ বালিকা বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পাস এবং বিয়ের পর উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন।

বিয়ের পর রচনার স্বামী খেলাধুলায় তার আগ্রহের জানতে পেরে , তাকে অনুশীলন চালিয়ে যাওয়ার উৎসাহ দেন। স্বামী শ্রীপদ সরকার নিজেও অত্যন্ত দরিদ্র। সামান্য একটি মুরগির মাংস বিক্রেতা। সংসারের অসচ্ছলতার কারণে রচনা বর্তমানে গাছা বাজারে টোটো চালিয়ে সংসার চালাতে সাহায্য করেন। ত্রিস্তর পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে দুবার সদস্য নির্বাচিত হয়ে জনগণের সেবা করেন।

এবং পিছিয়ে পড়া মানুষের সামাজিক ন্যায় প্রতিষ্ঠার কাজে আত্মনিয়োগ করেছেন। তাছাড়া সংগীতের প্রতি তার আগ্রহ আছে । রচনার প্রশিক্ষক মাননীয় শ্যামল সেন স্যার পঞ্চম শ্রেণি থেকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন । তার অক্লান্ত প্রচেষ্টার ফলে আজকের এত বড় সাফল্য । সকলের সাহায্য সহযোগিতা পেলে রচনা অলিম্পিক এশিয়ার এর মত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে সাফল্য আনতে পারে। রচনার জীবন থেকে শিক্ষা পেয়ে গ্রাম বাংলার অসংখ্য তরুণ-তরুণী ক্রীড়া জগতে স্বাক্ষর রাখতে পারে।

এছাড়াও চেক করুন

পার্শ্ববর্তী জেলাগুলির সঙ্গে বৈঠক করল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ পার্শ্ববর্তী জেলাগুলির সঙ্গে বৈঠক করল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার বর্ধমানে জেলাশাসকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.