Breaking News
Home >> Breaking News >> জেলার দেওয়ালে তুলির টানে শাসকের জোড়াফুল, দিল্লির বৈঠকে তাকিয়ে বিজেপি, বাম-কংগ্রেস জোটে মগ্ন

জেলার দেওয়ালে তুলির টানে শাসকের জোড়াফুল, দিল্লির বৈঠকে তাকিয়ে বিজেপি, বাম-কংগ্রেস জোটে মগ্ন

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া : ভোটের দিন ঘোষণার বয়স সবে দু’দিন, প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত হয়নি! তারমধ্যেই কর্মীদের নিয়ে দেওয়ালে জোড়াফুলের প্রতীক আঁকা শুরু করে দিয়েছে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। পঞ্চম দফায় আগামী ৬মে বনগাঁ, ব্যারাকপুর আরামবাগ, শ্রীরামপুর এর সঙ্গে হাওড়া সদর ও উলুবেড়িয়া লোকসভা আসনে নির্বাচন। রবিবার ভোটের দামামা বাজিয়ে দিল্লির নির্বাচন কমিশন এ কথা ঘোষণা করেছে। তারপর থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে হাওড়া গ্রামীণ এলাকায় দেওয়ালে প্রতীক চিহ্ন আঁকার কাজ। চুনকাম দেওয়া দেওয়ালে দলীয় প্রতীক এঁকে কার্যত দেওয়াল দখলে রাখা শুরু হয়ে গিয়েছে।

হাওড়া জেলায় দুটি লোকসভা কেন্দ্র। একটি হাওড়া সদর। অপরটি উলুবেড়িয়া। দুটি আসন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে উলুবেড়িয়া কেন্দ্রে দুবারের সাংসদ সুলতান আহমেদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে আকস্মিক প্রয়াণ হয়। ২০১৮ সালের শুরুতে পুনরায় নির্বাচন হয়। প্রার্থী হন সুলতান আহমেদের স্ত্রী সাজদা আহমেদ। ৪ লক্ষ ৭৪ হাজার ২০১ ভোটে জয়ী হয়ে দিল্লির সংসদে সদস্য হন। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে উনিশের লোকসভা তেও উলুবেড়িয়া লোকসভা আসনটি তে প্রার্থী হবেন সুলতান আহমেদের স্ত্রী সাজদা আহমেদ। যদিও এ বিষয় এখনও দলীয় তরফে কোনকিছু বলা হয়নি। তবে দলীয় কর্মীদের মুখে সাজদা আহমেদের নাম ভাসছে।

হাওড়া সদর আসনটি তে সাংসদ রয়েছেন খেলোয়াড় প্রসূন ব্যানার্জি। এবারও কি প্রার্থী হচ্ছেন প্রসূন বাবু! প্রশ্ন ছড়াচ্ছে। বড় কোনও পরিবর্তন না হলে এ বারও প্রার্থী হবার উজ্জ্বল সম্ভাবনা ১৪ সালের লোকসভা ভোটে ৪৩.৪০ শতাংশ ভোট পাওয়া হাওড়ার ভূমিপুত্র প্রসূন ব্যানার্জি। জানা যাচ্ছে লোকসভা নির্বাচন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যে ১২ জনের কমিটি গড়েছেন, তাঁদের নিয়ে মঙ্গলবার বিকালে কালীঘাটে বৈঠকে বসতে চলেছেন। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রথম তালিকা প্রকাশের সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে ৪২ আসনের মধ্যে প্রথম পনেরো জনের নাম ঘোষণা হতে পারে। থাকতে পারে হাওড়া জেলার দুই কেন্দ্রের প্রার্থীদের নাম!

জানা গেছে, দলীয়ভাবে যা সিদ্ধান্ত নেবে নিচু তলার কর্মী সমর্থকরা মেনে নেবে। সে কারণে দেওয়ালে প্রার্থীর নাম বাকি রেখে শাসকদলের ঘাসফুল প্রতীক আঁকা শুরু করে দিয়েছেন। এতে করে দুটি কাজ সেরে রাখছেন। প্রথমত দেওয়ালে প্রতীক চিহ্ন আঁকার কাজ করে বিরোধী দের চাপে রাখা। দ্বিতীয়ত দেওয়াল দখল করে নেওয়া। আর এই দ্বিতীয় টা নিয়েই শুরু হতে চলেছে বিরোধ। এর আগেও দেখা গেছে ভোটের আগে দেওয়াল লিখন নিয়ে শাসক-বিরোধী তর্জা। ১৯-এর লোকসভা ভোটেও যে একি আঁচ পাওয়া যাবে তা একপ্রকার নিশ্চিত।

জেলা বিজেপির এক প্রথম সারির নেতার কথায়, লোকসভা ভোটে উলুবেড়িয়া কেন্দ্রটি পাখির চোখ করেছে বিজেপি। এই কেন্দ্রে বিধানসভা ভোটে ভালো রকম ভোট ঝুলিতে এসেছে। সেইমত এই কেন্দ্রে প্রার্থী করা নিয়ে জোরদার আলোচনা চলছে। উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রে উপ নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী অনুপম মল্লিক ভোটের নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন। প্রাপ্ত ভোট ২৩.২৯ শতাংশ। সিপিএমের সাবিরউদ্দিন মোল্লার থেকে শতাংশ ডবল। সোমবার দিল্লিতে রাজ্য রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব’র সঙ্গে অমিত শাহ নিজে বৈঠক করবেন। তারপর দেওয়াল লিখন ও তোড়নে জোর দেব। এক ইঞ্চি জমি ছাড়া হবে না। বামেরা ও কংগ্রেস এখন দেওয়াল লিখন নিয়ে চুপ। জোট নিয়ে কি বলেন কংগ্রেস সভাপতি সেদিক নজর।

এছাড়াও চেক করুন

মাতৃভাষা বাঁচাবার তাগিদে সাইকেল চেপে দেশ ভ্রমণ যুবকের

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিংনিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিংঃ মাতৃভাষা বাঁচাবার তাগিদে সাইকেল চেপে দেশ ভ্রমণে মহারাষ্ট্রের ডংরিগলির বাসিন্দা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.