Breaking News
Home >> Breaking News >> একসাথে বিষ খেয়ে মারা গেল ৮বছর আগের প্রেমিক-প্রেমিকা

একসাথে বিষ খেয়ে মারা গেল ৮বছর আগের প্রেমিক-প্রেমিকা

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া : আট বছর আগের প্রেম। তারপর দুজনের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। সাত বছর আগে বিয়ে হয়ে গিয়েছিল প্রেমিক অভিজিতের। অন্য সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছিল মেয়েটিও। সম্প্রতি বিয়ে হয়েছিল মেয়েটির। তবুও পুরনো প্রেম ফিরে এসেছিল দু’জনের। সম্পর্কের শেষ হয়ে গেল শুক্রবার সন্ধ্যায়। প্রেমিক-প্রেমিকার দেহ মেলে গ্রামের রাস্তার ধারে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে দুজনেরই মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়। প্রাথমিক ভাবে অনুমান বিষক্রিয়ায় মৃত্যু হয়েছে। গ্রামীণ হাওড়ার জগতবল্লবভপুর থানার সন্ধ্যাবাজার এলাকার ঘটনা। মৃতদের নাম অভিজিৎ খাঁ এবং পিয়া পোড়েল।

মৃতা প্রিয়ার মা জানান, গত কাল মেয়ে ফোন করে জানায়, আমায় একবার নিয়ে যাবে। আমি বলি হাঁটতে চলতে পারি না কিভাবে নিয়ে যাব। তখন জামাইকে বলি একবার পাঠিয়ে দিয়ে যাও না। জামাই বলে, আর যেতে হবে না। দু দিন পরে গিয়ে ফায়সালা করবো। মেয়ে আমায় কিছু বলতে সময় দেয়নি। আমাদের ঘরেও আসেনি। ওখানে পাঁচটা সাড়ে পাঁচটার সময় বেরিয়ে টেনশনে কখন কি করেছে আমরা কিছুই জানিনা। বেশ কিছুক্ষণ পর আমার ভাইপোকে জামাই ফোন করে বলে। তোমার পিষির মেয়ে বেরিয়ে গেছে খোঁজ না একবার কোথায় গেল। গিয়ে দেখে খেয়ে বসে আছে।

এত দিন পুরনো সম্পর্ক। সাত বছর আগে অভিজিতের বিয়ে হয়ে যায়। মেয়েটিও একটা অন্য সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল। বিয়ে হয় বাইশ দিন আগে। তবুও ওদের মধ্যে এতদিন ধরে সম্পর্ক টিকে ছিল। শুক্রবার শ্বশুরবাড়ি থেকে বেরিয়ে সন্ধ্যাবাজার এলাকায় অভিজিৎ-এর কাছে আসে। তারপর খবর আসে ওরা বিষ খেয়েছে। এই ঘটনায় এলাকাবাসীদের মধ্যে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। শনিবার গ্রাম উজাড় করে জগতবল্লভপুর থানায় এসেছেন সকলে। এমন ভালোবাসা দেখে অনেকেই হা হুতাশ করছে। পিয়ার পরনে লাল কাপড়ের উপর সবুজের আভা ও টকটকে লাল ব্লাউজ। মাথায় সিঁদুর, হাতে শাঁখা পলা। অভিজিতের পরনে ফুল হাতা ব্লু গেঞ্জি ও কালো ট্রাকসু।

অভিজিতের কাকা লক্ষ্মীকান্ত খাঁর কথায়, হঠাত খবর পেলাম ওখানে দুজন ওষুধ খেয়ে পড়ে আছে। গিয়ে দেখি আমার একটা ভাইপো। আট বছর আগে যার সঙ্গে ভালোবাসা ছিল তারও বিয়ে হয়ে গিয়েছিল কুড়ি-বাইশ দিন আগে। দুজনে মিলে ওষুধ খেয়ে পড়ে রয়েছে। তারপর নিয়ে আসা হয় হসপিটালে। সেখানেই মারা যায়। কারণ টা না বোঝা গেলেও মনে হয় ভালোবাসার কারণে ওষুধ খেয়েছে। বছর আট আগে ভালোবাসা ছিল। সেই সময় আমরা মেয়ের বাড়িতে প্রস্তাব দিলে রাজি ছিল না। তারপর আমরা ছেলের বিয়ে দিয়ে দিই। কিন্তু ওদের মধ্যে কি ছিল জানি না। মেয়েটাও বিয়ে করেছে বাইশ দিন। তবুও কাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার সময় বিষ খায় দুজনে।

ঠিক কি কারনে মৃত্যু তা জানতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অভিজিতের স্ত্রী ও মেয়েটির স্বামী এবং মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এছাড়াও চেক করুন

চাকরির টোপ দিয়ে ২ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতা: ট্রাইবাল ডেভলপমেন্টের ভুয়ো ওয়েবসাইট খুলে ২ কোটি টাকার প্রতারণার দায়ে গ্রেফতার ২ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.