Breaking News
Home >> Breaking News >> নেতারা ভীড় জমাচ্ছেন ছাপাখানায়, ভোটের মুখে লক্ষীলাভ ফ্লেক্স ব্যবসায়িদের

নেতারা ভীড় জমাচ্ছেন ছাপাখানায়, ভোটের মুখে লক্ষীলাভ ফ্লেক্স ব্যবসায়িদের

সুমন করাতি, স্টিং নিউজ, হুগলী।

লোকসভা ভোটের আগে রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে বিরোধ যতই বাড়ুক না কেনো, এই জায়গায় কিন্তু সকলেই সমান। ডান-বাম, বিজেপি-অ-বিজেপি এখানে কারোর মধ্যে কোন বিভেদ নেই। মোদি-মমতা এখানে একই জায়গা থেকে বেড়িয়ে আসেন। আর ভোটের বাজার চলছে তাই এ-ঘড়ে আপাতত অন্যদের প্রবেশ নিষেধ। শুধুই রাজনৈতিক রথী-মহারথীদের জন্য এখন অবাধ প্রবেশ।

কি ভাবছেন নির্বাচন কমিশনের অফিস? না তা কিন্তু একেবারেই নয়। তবে নির্বাচনের সঙ্গে এর অবাধ সম্পর্ক। লোকসভা ভোটের দিনক্ষন ঘোষনা হতেই প্রচারের কথা মাথায় রেখে দেওয়াল লিখনের পাশাপাশি রাজনৈতিক দলগুলি পছন্দ ফ্লেক্স-ব্যানার। কাপড়ের উপর হাতে লেখার দিনক্ষন এখন গেছে। এখন সব রাজনৈতিক দল গুলিরই প্রথম পছন্দ ফ্লেক্স-ব্যানার। তাই সকলেই ভীড় জমাচ্ছে বিভিন্ন ফ্লেক্সের দোকানে।

বাঁশবেড়িয়া মিলনপল্লী এলাকার ফ্লেক্স ব্যাবসায়ী পার্থ মুখার্জী। বিগত ছ’বছর ধরে তিনি এই ব্যাবসার সাথে যুক্ত। প্রত্যেকবছর কোন না ভোট এলে তার ব্যাবসার চাপ কয়েকগুন বেড়ে যায়। বাড়ে কর্মচারীদের কাজও। মিলনপল্লী এলাকায় তার দোকানে এখন কর্মীদের নাওয়া-খাওয়া প্রায় বন্ধ। দিনরাত এক করে এখানের জনা ছ’য়েক কর্মী এখন কাজ করে চলেছেন। ডিজাইন বানানো থেকে শুরু করে প্রিন্ট দেওয়া এবং সবশেষে রোল করে বায়নাদারদের হাতে তুলে দেওয়া পর্যন্ত সমস্ত কাজটাই তারা করেন। গত ১০ তারিখ ভোটের দিনক্ষন ঘোষনা হওয়ার পর ১২ তারিখ তৃণমূল নেত্রী তাঁদের প্রার্থী তালিকা ঘোষনা করেছেন। আর সেদিন বিকেল থেকেই অর্ডার আসা শুরু হয়ে গেছে। প্রতিদিনই নতুন নতুন অর্ডার আসছে আর প্রতিদিন ডেলিভারিও হচ্ছে। অন্যান্য দল এখনও প্রার্থী তালিকা ঘোষনা না করায় ফ্লেক্স অর্ডারে আপাতত অনেকটাই এগিয়ে তৃণমূল। তবে অন্যান্য দলগুলিও ইতিমধ্যে কটা কোন সাইজের ব্যানার লাগবে সে বিষয়ে জানিয়ে অরডার বুক করা শুরু করে দিয়েছেন। দোকান মালিক পার্থ মুখার্জির বক্তব্য বিগত ভোটগুলির মত এবারেও ফ্লেক্স অর্ডারে তৃণমূল অনেকটাই এগিয়ে। বিজেপি ২ এবং রাজ্যের বিরোধী জোট ৩ নম্বরে থাকবেন বলে বিশ্বাস তাঁর। বিগত কয়েকটি ভোটে ফ্লেক্স অর্ডারের বিচারে যা হয়েছে রাজ্যের ভোট সমীকরনও তাই হয়েছে। আর এবারে রাজ্যের রাজনৈতিক সমীকরনও কিন্তু অনেকটা তারই আভাস দিচ্ছে! তবে সত্যিই তাই হয় কিনা তার জন্য কিন্তু আমাদের আগামি ২৩শে মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে।

এছাড়াও চেক করুন

‘এনআরএসে যাঁরা চিকিৎসকদের মেরেছে তাঁরা জামাতের লোক’ : দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম : রবিবার ঝাড়গ্রাম শহরের স্টেশনপাড়ায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.