Breaking News
Home >> Breaking News >> গ্রামীণ হাওড়ায় উদ্ধার বিপন্ন প্রজাতির শিশু বাঘরোল, তুলে দেওয়া হল বন দপ্তরের হাতে

গ্রামীণ হাওড়ায় উদ্ধার বিপন্ন প্রজাতির শিশু বাঘরোল, তুলে দেওয়া হল বন দপ্তরের হাতে

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া: একটু সচেতন হলে বাঁচানো সম্ভব বিপন্ন প্রজাতির জীবজন্তুদের। সেটাই প্রমাণিত হল শনিবার সন্ধ্যায়। শিশু বাঘরোলকে বাড়ির উঠোনে ঘুরতে দেখে দেরি করেননি উদ্ধারে। তারপর তুলে দেওয়া হয় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের হাতে। সেখান থেকে বন দপ্তরে। রক্ষা পেল একটি প্রাণ।

গ্রামীণ হাওড়ার আমতা থানার একাধিক এলাকায় যত্রতত্র ঘুরে বেড়ায় বেশকিছু জীবজন্তু। শনিবার সন্ধ্যার দিকে নারিট গ্রামের শিক্ষক রবীশঙ্কর দীগের বাড়ির উঠোনে চলে আসে একটি শিশু বাঘরোল। কুকুর বা অন্য কোন পশুর আক্রমণ বা মানুষের একটু ভুলে প্রাণ যেতে পারে। সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধার করে খবর দেন ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে।

ওই সংগঠনের কথায়, খবর পেয়েই আমাদের সদস্যরা পৌঁছে যায়। শিশু বাঘরোল টিকে নিয়ে বন দপ্তরের হাতে তুলে দেন। শিক্ষক মহাশয়ের জন্য রক্ষা পেয়ে যায় বাঘরোল টি। এই বিষয় পূর্ণ সহযোগিতা করেছেন আমতা-২ নং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুকান্ত পাল। মূলত তাঁর সহায়তায় বাঘরোলটিকে তুলে দেওয়া হয় বন দপ্তরের হাতে।

বাঘরোল বা ফিসিং ক্যাট পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপ্রাণী। গ্রামীণ হাওড়া বিশেষত আমতা-১ ও ২ এছাড়া শ্যামপুর-১ এবং ২ নং ব্লকে বিপন্নপ্রায় প্রজাতির প্রাণীর সংখ্যা সবথেকে বেশি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় অসচেতনতার ফলে মানুষ পিটিয়ে মারেন। এই বিষয় শিক্ষক প্রদীপ রঞ্জন রীত সহ একাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। বিভিন্ন স্কুলে, ঘন বসতি পূর্ণ এলাকায় বিস্তর প্রচার করেছেন। সাঁটিয়েছেন পোস্টার। এমন প্রচারের ফলে মানুষের মধ্যেও সচেতনতা বেড়েছে বলেই মত। যার কারণে এ দিন রক্ষা পেল একটি শিশু বাঘরোল।

এছাড়াও চেক করুন

তৃণমূল কংগ্রেস কে তিনি “ভীতু” বলে কটাক্ষ ভারতী ঘোষের

কার্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুর: “কেশপুরে তৃণমূল আমাদের ভয় পেয়েছে। তাই আমাদের আটকানোর জন্য সর্বতোভাবে চেষ্টা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.