Breaking News
Home >> Breaking News >> বাসন্তী পূজায় তৈবিচারা গ্রামে মেতে উঠলেন নির্বাচনি প্রচার ভুলে

বাসন্তী পূজায় তৈবিচারা গ্রামে মেতে উঠলেন নির্বাচনি প্রচার ভুলে

নবেন্দু ভট্টাচার্য, স্টিংনিউজ করেন্সপন্ডেট, নাকাশিপাড়া, নদীয়াঃ নদীয়ার নাকাশিপাড়া তৈবিচারা গ্রামে পাঁচ দিনব্যাপী বাসন্তী পূজা আজ শেষ দিন। এই পাঁচ দিন ধরে দেবী দুর্গার পূজা হয়। শরৎকালের অকালবোধন নামে পূজা হয়। আসলে দেবী দুর্গার মহিষাসুরমর্দ্দিনী যে পূজা সেটা হয় মূলত বসন্তকালে। রাজা সুরথ চালু করেছিলেন সেই পুজো বাসন্তী পূজা নামে খ্যাত। এই পূজার প্রচলন বেশি নেই। কিন্তু নাকাশিপারার একমাত্র তৈবিচারা গ্রামের অধিবাসী গন এই পূজাকেই প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। যেখানে দুর্গাপূজা শারদীয়া দুর্গাপূজা ম্লান হয়ে যায় এই পূজার কাছে।

এই পাঁচ দিন ধরে চলে নানা রকম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলে বাউল গান, চলে বহিরাগত শিল্পী সমন্বয়ের অনুষ্ঠান ,অরকেস্টার বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী রাও আসেন ।এই বছরও তারা অনুষ্ঠান করলেন ।বিভিন্ন ধরনের দোকান নিয়ে দূর দূর থেকে দোকানীরা আসেন। প্রতিবছরের মতো এবছরও তোরা গ্রামের অধিবাসীরা মেতে উঠেছেন অন্যরকমভাবে। এখন চলছে নির্বাচনী প্রচার ।লোকসভা নির্বাচন কৃষ্ণনগরের নির্বাচনের বিভিন্ন দলের প্রার্থীর প্রচার। বিভিন্ন দলের বিভিন্ন মানুষ সমস্ত নির্বাচনী প্রচার ভুলে গিয়ে এই পূজা অনুষ্ঠানে তারা মেতে রয়েছেন ।

প্রত্যেকের কর্ম থেকে ছুটি নিয়ে ৫ দিন তারা মেতে রয়েছেন। এই অনুষ্ঠানে কমিটির সম্পাদক সভাপতি সদস্য ,সদস্যাবৃন্দ। একনিষ্ঠ কর্মী সদস্যা শেফালী রায়। যিনি নিজে নির্বাচনী প্রচারে বের হন নি। তিনি প্রচার বন্ধ রেখেএই পূজায় ব্যস্ত থাকেন। এই পুজোর মূল উদ্যোক্তা মহিলা সদস্যা। এবং বিশ্বজিৎ, কৃষ্ণ , রঞ্জিত রায় , স্মরজিৎ রায় সহ অনেকেই এই পুজো কমিটিতে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত রয়েছেন ।তাদের পেশাগত কারণে থেকে কিছু দিনের জন্য ছুটি নিয়েছেন।

এই অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ ছিল নদীয়ার বেথুয়াডহরি নাম করা বিশ্বস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শ্রীমা নৃত‍্যকলা কেন্দ্রের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মূলত পুল ওয়ামারাতে জঙ্গিদের দ্বারা শহীদ হয়েছিলেন যে সমস্ত জওয়ানেরা তাদেরকে স্মরণ করে এ বছরে তাদের বিশেষ নিবেদন, যা নাকাশিপাড়ার বুকে সাড়া ফেলেছে সাংষ্কৃতিক জগতে,সেই অনুষ্ঠান দেখে দর্শকরা মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন। অধ‍্যক্ষা মৌমিতা ভট্টাচার্য ও রূপম সাহার পরিচালনায় এ বছরের আকর্ষণীয় অনুষ্ঠান ছিল এই অনুষ্ঠানটি। আগামীকাল হবে বিসর্জন, তারপর যে যার কর্মে নিযুক্ত হবেন নতুন বছরের শুভ কামনায়।

এছাড়াও চেক করুন

তৃণমূল কংগ্রেস কে তিনি “ভীতু” বলে কটাক্ষ ভারতী ঘোষের

কার্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুর: “কেশপুরে তৃণমূল আমাদের ভয় পেয়েছে। তাই আমাদের আটকানোর জন্য সর্বতোভাবে চেষ্টা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.