Breaking News
Home >> Breaking News >> দিনহাটায় তৃণমূল কর্মীকে মারধোর করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

দিনহাটায় তৃণমূল কর্মীকে মারধোর করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ তৃণমূল কংগ্রেসের এক কর্মীকে মারধোর করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। আক্রান্ত ওই তৃণমূল কর্মীর নাম শংকর রায়। ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা ১নং ব্লকের পুটিমারি ১নং গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত কোয়ালিদহ গড় এলাকায়। ওই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তাঁর চিৎকার চেঁচামেচি শুনে স্থানীয়রা ছুটে আসলে বিজেপি কর্মীরা বাইক নিয়ে ঘটনাস্থ থেকে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আক্রান্ত ওই তৃণমূল কর্মীকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় দিনহাটা থানা পুলিশ। পরে আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে ৯ জন বিজেপি কর্মী সমর্থকের বিরুদ্ধে দিনহাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।
আক্রান্ত তৃণমূল কর্মী শঙ্কর রায় অভিযোগ করে বলেন, শনিবার রাতে স্থানীয় একটি মেলায় গিয়েছিলাম। সেখান থেকে ফেরার পথে রাস্তায় বাবলু মোহন্ত নামে এক বিজেপি কর্মীর সঙ্গে দেখা হয়। বাবলু আমাকে জিজ্ঞাসা করে কোন দল করিস। তখন আমি তাঁকে বললাম আমি তৃণমূল কংগ্রেস করি। বলার সঙ্গে সঙ্গে আমাকে বাবলু মোহন্ত বলে তোর এত সাহস কি করে হয়। তুই তৃণমূল করিস। তারপর দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি থেকে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। হঠাৎ দেখি তাঁর বাবলু মোহন্তের বাড়ির ভিতর থেকে ৪-৫টি বাইকে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাকে সেখানে ফেলে মারধোর করে। শেষে বাবলু মহন্ত আমার মাথার পিছনে বাঁশ দিয়ে আঘাত করে আমার মাথা ফেটে যায়। তাঁর পর আমার কি হয়েছে আমি জানি না। পরে স্থানীয়রা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস।
এবিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি নুর আলম হোসেন বলেন,“বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাদের দলীয় কর্মী শংকর রায়কে গতরাতে মারধোর করে। সে বর্তমানে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি। বিজেপির ওই দুষ্কৃতীদের ক্ষমতা নেই যে তাঁরা দিনের আলোয় ঘুরে বেড়াবে। তাই কাপুরুষের মতো রাতের অন্ধকারে বহিরাগত দুষ্কৃতীদের এনে নিরীহ মানুষকে মারধোর করে। আমরা দলগত ভাবে শংকরের পাশে আছি। পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হয়েছে বিজেপির বহিরাগত দুষ্কৃতীদের ও অভিযুক্তদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করুক।” যদিও ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বিজেপি নেতৃত্বরা।

এছাড়াও চেক করুন

তৃণমূল কংগ্রেস কে তিনি “ভীতু” বলে কটাক্ষ ভারতী ঘোষের

কার্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুর: “কেশপুরে তৃণমূল আমাদের ভয় পেয়েছে। তাই আমাদের আটকানোর জন্য সর্বতোভাবে চেষ্টা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.