Breaking News
Home >> Breaking News >> নীলরতন কান্ডের প্রতিবাদ গড়ালো হাওড়ার দুই হাসপাতালে, বিঘ্ন আউটডোর পরিষেবা

নীলরতন কান্ডের প্রতিবাদ গড়ালো হাওড়ার দুই হাসপাতালে, বিঘ্ন আউটডোর পরিষেবা

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া : নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তারদের উপর হামলার প্রতিবাদ বুধবার গড়াল হাওড়া জেলা হাসপাতাল ও হাওড়া হোমিওপ্যাথিক হাসপাতালে। আউটডোর সহ হাসপাতালের বিভিন্ন পরিষেবা এ দিন ব্যাহত হয়। আউটডোর বন্ধ রেখে এমারজেন্সিতে ও বাইরে টেবিল পেতে রোগীদের দেখা হয়। সেখানে রোগীদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। অন্যদিকে হোমিওপ্যাথিক হাসপাতালে চেম্বারে বসা ডাক্তারদের জুনিয়ার ডাক্তাররা তুলে দেয়। ভোর পাঁচটা থেকে দূর দূরান্ত থেকে আসা মানুষজন লাইন দিয়ে পরে দরজা বন্ধ করে দেওয়া হলে চিকিৎসা পরিষেবা না পেয়ে বহু মানুষ বিরক্ত প্রকাশ করেন। তাঁদের অভিযোগ কেউ মেদিনীপুর কেউ হুগলী থেকে এসেছেন এখন চিকিৎসা না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন।

জুনিয়র ডাক্তরদের উপর হামলায় গুরুতর জখম হয় চব্বিশ বছরের পরিবহ মুখোপাধ্যায়। হাওড়ার ডোমজুড়ের ষষ্ঠীতলার বাসিন্দা পরিবহ’র উপর যেভাবে হামলা চালানো হয়েছে তাতে বিস্মৃত চিকিৎসক মহল। হাওড়া জেলা হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তাররা ঘটনার পোস্টার হাতে প্রতিবাদে সামিল হয়। তাঁরা যে যথেষ্ট আতঙ্কিত তা চোখেমুখে ধরা পড়ে। চিকিৎসকদের কথায়, যথেষ্ট আতঙ্কে রয়েছেন। যেকোনো মুহূর্তে তাঁরাও আক্রান্ত হতে পারেন। সরকারি হাসপাতালেই যদি তাদের নিরাপত্তা না থাকে তাহলে প্রাইভেট চেম্বারে নিরাপত্তা কোথায় বলে প্রশ্ন তোলেন। নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন। হাতে থাকা পোস্টার লেখা ডাক্তার পেটানো এক দূরারোগ্য ব্যাধি। নিরীহ ডাক্তার মারার প্রতিবাদে ধিক্কার জানাই। আমাদের বাবা-মাও চিন্তা করেন। আজ আমার ছেলে-মেয়ে মার না খেয়ে বাড়ি ফিরবে তো এমনি একাধিক পোস্টার হাতে সামিল হন। নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ কান্ডে অভিযুক্তদের অবিলম্বে কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন।

চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন দেখা পরিবহ ডোমজুড়ের ঝাঁপরদহ ডিউক ইনস্টিটিউশন উচ্চমাধ্যমিক অবধি পড়াশোনা শিখেছে। মেধাবী পরিবহ সর্বভারতীয় মেডিকেল প্রবেশিকা পরীক্ষায় ১৮০ র‍্যাঙ্ক করেন। তারপর চিকিৎসাশাস্ত্র পড়তে যান এনআরএস মেডিকেল কলেজে। বর্তমানে এনআরএস হাসপাতালেরই ইন্টার্ন চিকিৎসক রয়েছেন তিনি। বাবা শুভাঙ্কুর মুখার্জি অবসরপ্রাপ্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। ওইদিন গুরুতর আহত হওয়ার পর ইন্সস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সে ভর্তি হন পরিবহ মুখোপাধ্যায়। তারপর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মল্লিকবাজার এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই গোটা পরিবার ওই হাসপাতালেই রয়েছেন। কপালের উপরে করটির হাড় ভেঙেছে। হয়েছে অস্ত্রপ্রচার। তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

বুধবার বেলা গড়াতেই হাওড়া হোমিওপ্যাথিক হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তাররা প্রতিবাদ মিছিল বের করেন। হাওড়া ময়দান চত্বর ছাড়িয়ে ফ্ল্যাইওভারের নিচে বিক্ষোভ দেখান। উপস্থিত ছিলেন ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের হাওড়া বিভাগেরর সম্পাদক ও সভাপতি। অন্যদিকে এলাকার ছেলের উপর এমন আক্রমণে স্তম্ভিত ডোমজুড় এলাকার বাসিন্দারা। তাঁরা চান দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার। এলাকাবাসীরা মৌন মিছিল করবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। চলছে সোশ্যাল মিডিয়াতেও জোরদার প্রতিবাদ।

এছাড়াও চেক করুন

কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে জুনিয়ার চিকিৎসকদের কর্মবিরতি না মিটতেই, চিকিৎসা কর্মীকে মারধরের অভিযোগ দক্ষিন দিনাজপুর জেলা হাসপাতালে

শিবশংকর চ্যাটার্জ্জী, স্টিং নিউজ, দক্ষিন দিনাজপুর: কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে জুনিয়ার চিকিৎসকদের কর্মবিরতি না মিটতেই চিকিৎসা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.