Breaking News
Home >> Breaking News >> দিনহাটায় ছাত্র নিগ্রহের প্রতিবাদ মিছিলে তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে শ্লোগান, ছাত্র ধর্মঘটের ডাক

দিনহাটায় ছাত্র নিগ্রহের প্রতিবাদ মিছিলে তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে শ্লোগান, ছাত্র ধর্মঘটের ডাক

মনিরুল হক, স্টিং নিউজ, কোচবিহারঃ দিনহাটা কলেজের ভিতরে ঢুকে প্রথম বর্ষের ছাত্র নিতাই দাসকে মারধোর করার ঘটনায় আগামী কাল ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। এদিন সন্ধ্যায় ওই ঘটনার প্রতিবাদে দিনহাটা শহরে মিছিল করে তৃণমূলের ছাত্র যুবরা। ১৫ মিনিট ধরে অলোক নন্দী ভবনের সামনে অবরোধ করা হয়। এরপর সেখান থেকে গোটা শহরে সেই মিছিল পরিক্রমা করে।

ফলে শহরে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। ওই মিছিল থেকে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রাক্তন কোচবিহার জেলা সভাপতি সাবীর সাহা চৌধুরী সহ মাদার গোষ্ঠীর বেশ কয়েকজন নেতৃত্বের বিরুদ্ধে স্লোগান তোলে ছাত্র যুবরা। ফলে এদিন সন্ধ্যায় ওই মিছিলকে কেন্দ্র করে শহরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। মিছিল শেষে ছাত্র যুবদের পক্ষ থেকে দিনহাটায় আগামী কাল স্কুল কলেজে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়।
গতকাল দিনহাটা কলেজের ভিতরে ঢুকে নিতাই দাস নামে প্রথম বর্ষের এক ছাত্রকে ব্যাপক মারধোর করা হয়।

ওই ছাত্র এখন কোচবিহারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে সঙ্কট জনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ওই ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তাঁদের এদিন আদালতে তোলা হলে ৭ দিনের পুলিশ হেফাজত দেওয়া হয়। তৃণমূল কংগ্রেসের মাদার- যুব’র গোষ্ঠী কোন্দলকে কেন্দ্র করে ওই ঘটনা বলে রাজনৈতিক মনে করলেও তৃণমূলের কোন পক্ষের নেতৃত্ব প্রকাশ্যে মুখ খুলতে রাজী হন নি। কিন্তু এদিন সন্ধ্যার ওই মিছিলে যুব গোষ্ঠী ঘনিষ্ঠ দিনহাটা কলেজের ছাত্র নেতা বিকি মণ্ডল, সাবানা খাতুন, আমির আলমদের দেখা যায়।

আর সেখান থেকে মাদার গোষ্ঠীর নেতৃত্বের বিরুদ্ধে স্লোগান ওঠে। আর তাতেই দুই গোষ্ঠীর লড়াইয়ের ঘটনা প্রাকশ্যে আসে।
কোচবিহার জেলার তৃনমূল ছাত্র পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি সাবির সাহা চৌধুরী বলেন, “ ছাত্র নিগ্রহের ঘটনা দুঃখজনক। একজন ছাত্র মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। অথচ তাঁর পাশে না দাঁড়িয়ে কিছু লোক রাজনীতি করছে। আমি ৫ দিন ধরে কলকাতায় আছি। শুনেছি আমার নামেও নাকি ডাইরি করা হয়েছে। আসলে আমাকে ফাঁসাতে চক্রান্ত চলছে। পুলিশকে জানিয়েছি যে যারা প্রকৃত দোষী, তদন্ত করে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হোক।”

দিনহাটা কলেজের ছাত্রী সাবানা খাতুন বলেন, “নিতাই দাসকে কলেজের ভিতরে ঢুকে মারধোর করার ঘটনায় অভিযুক্তদের প্রত্যেককে গ্রেপ্তারের দাবিতে আজ আমরা পথে নেমেছি। আগামী কাল দিনহাটার স্কুল-কলেজে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তার না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া হবে।”

এছাড়াও চেক করুন

ভয়াবহ আগুনে ভস্মীভূত হয়ে গেল ব্যারাকপুর কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ের উপর একটি প্লাস্টিক কারখানা

সৈকত গাঙ্গুলী, ব্যারাকপুর: ভয়াবহ আগুনে ভস্মীভূত হয়ে গেল ব্যারাকপুর বেলঘড়িয়া এক্সপ্রেসওয়ের ধারে খড়দহ থানার অন্তর্গত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.