Breaking News
Home >> Breaking News >> স্কুল ছাত্রীদের উপর বারেবারে যৌন হেনস্থায় আতঙ্কিত পরিবার, অভিযোগ যাচ্ছে বিভিন্ন মহলে

স্কুল ছাত্রীদের উপর বারেবারে যৌন হেনস্থায় আতঙ্কিত পরিবার, অভিযোগ যাচ্ছে বিভিন্ন মহলে

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, হাওড়া: মামা দাদুর হাতে দীর্ঘ দিন যৌণ হেনস্থার শিকার পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। চাঞ্চল্যকর ঘটনার মাঝেই এবার হাওড়ায় পুলকার চালকদের হাতে যৌন লালাসার শিকার নামকরা স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। দুটি ঘটনা হাওড়া শহরের সুশীল সমাজের কাছে প্রশ্ন তুলে ধরেছে।

প্রথম ঘটনাটি বালি এলাকার ক’দিন আগের। পুলিশ কর্মী মামা দাদু দীর্ঘ দিন ধরে ছোট্ট নাতনিকে যৌন নির্যাতন করে আসছেন। বিষয়টি মা-বাবার গোচরে হলেও পুলিশ কর্তা হওয়ায় একপ্রকার চুপ থেকে যায়। তবে স্কুলে দিদিমণি ও স্যরেদের কাছে প্রকাশ হতেই বালি থানায় অভিযোগ দায়ের। অপর ঘটনাটি যদিও ২৪ ঘন্টা আগের। পুলকারের মধ্যে ছাত্রীর সঙ্গে বেশ কয়েকদিন অশালিন আচরণের অভিযোগ চালক ও সহকারীর বিরুদ্ধে। বি-গার্ডেন থানায় অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর গ্রেফতার দুই অভিযুক্ত। শিবপুর এলাকার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

ঘটনার বিষয় নাগরিক মঞ্চ, বচপন বাঁচাও এবং শিশু সুরক্ষা কমিশনে জানানো হয়েছে। শিশুটির সম্পর্কে নিজের দাদু এতটা বিকৃত হতে পারে প্রশ্ন তুলেছে নাগরিক সমাজ। অপরদিকে স্কুলে দিয়ে আসা ও নিয়ে আসা যাদের দায়িত্ব সেই চালক ও সহকারি চালকদের হাতে অসহায় শৈশব। ঘটনার পর পুলকার চালক সাগর মন্ডল এবং দেবজিৎ লাহাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে প্রশ্ন উঠে এসেছে অনেক। হাওড়া শহরে একাধিক নামীদামী স্কুল। পড়াশোনার মান উঁচু হওয়ায় বাচ্চা দের ভর্তি করাতে চায় সকলে। মোটা অঙ্কের স্কুল ফিজ ডোনেট করেও পুলকার চালকদের হাতে শিশুদের উপর হেনস্তার অভিযোগ উঠছে। দেবদত্তা শাসমল, অঙ্গনা চৌধুরী নামের দুই অভিভাবিকা জানিয়েছেন। স্কুলে মেয়েদের পাঠিয়ে ভয়ে ভয়ে থাকি। গাড়ি থেকে নামিয়ে বাচ্চাদের জিজ্ঞাসা করি কোন অসুবিধা হয়নি তো। কিন্তু নামী স্কুলে এমন ঘটনা ঘটছে কেন ?

সূত্রের খবর, শিবপুর এলাকার ওই দুই অভিযুক্ত পুলকার মালিক রঞ্জন রায় এর গাড়ি চালাতেন। বাকি ছাত্র ছাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে ওই ছাত্রীর সাথে অশালিন ব্যবহার করতো। প্রথমে কাউকে না জানালেও মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ায় পরিবারে জানায় ছাত্রীটি। শিবপুর বি গার্ডেন থানায় অভিযোগ জানাবার সাথেই মালিকের পুলকার গ্যারেজ থেকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্তরা মোবাইল আসক্ত হয়েই এই ধরনের বিকৃত কাজ করে থাকতে পারে৷ তবে এটাই প্রথম নয়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে হাওড়ায় শিশুকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে গ্রেফতার হয় ৫২ বছরের এক পুলকার চালক। সেবার আদালত চত্বরেই ধৃতের উপর চড়াও হয় বিজেপি মহিলা মোর্চা ও বিজেপি সমর্থকরা।

স্কুল ছাত্রীদের উপর বারেবারে যৌন হেনস্থা আতঙ্কিত শিশুদের পরিবারের একাংশ। অভিযোগ যাচ্ছে নাগরিক মঞ্চ, বচপন বাঁচাও কমিটি ও শিশু সুরক্ষা কমিশনে। তবে আদৌ কি কমবে এই প্রশ্নই ঘুরেফিরে আসছে।

এছাড়াও চেক করুন

শুক্রবার থেকে বাতিল বর্ধমান হাওড়া লাইনের বহু ট্রেন

স্টিং নিউজঃ থার্ড লাইনের কাজ চলার জন্য শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বর্ধমান হাওড়া মেন শাখার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.