Breaking News
Home >> Breaking News >> মোদিকে মিথ্যাবাদী প্রধানমন্ত্রী বললেন অনুব্রত

মোদিকে মিথ্যাবাদী প্রধানমন্ত্রী বললেন অনুব্রত

অভিজিৎ ঘোষ, মঙ্গলকোটঃ মোদিকে মিথ্যাবাদী প্রধানমন্ত্রী বলে সম্বোধন করলেন অনুব্রত মণ্ডল। রবিবার মঙ্গলকোটের সভা থেকে অনুব্রত বলেন, মোদি তোমার মনে আছে ২০১৪ সালের মিথ্যা প্রতিশ্রুতি ? মানুষ ভুলে যায়নি। আচ্ছে দিন আসেনি। ভারতবর্ষে কালো দিন এসেছে। তুমি বলেছিলে গরিব মানুষের অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা করে ঢুকিয়ে দেবো। কিন্তু তুমি দাওনি সেই টাকা। তুমি বলেছিলে বছরে ২ কোটি করে চাকরি দেবো। কিন্তু তুমি তাও দাওনি। অপরদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৭ বছরে উন্নয়নে ভরিয়ে দিয়েছেন বলে দাবি করেন অনুব্রত। তিনি বলেন, মোদি তুমি কি করে হিন্দু মুসলিমের দ্বন্দ্ব লাগাবো, কি করে বিবাদ করবো এইসব চিন্তা করো।

এদিন অনুব্রত প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, তুমি ভালো প্রধানমন্ত্রী নও। বল্লভ ভাই প্যাটেলের একটা বিরাট মূর্তি তৈরি করেছো। কেউ তোমাকে বারণ করেনি। তবে তুমি বল্লভ ভাই প্যাটেলের মূর্তি না করে, গান্ধীজির মূর্তি করলে মানুষ তোমাকে আর্শীবাদ করতো। দোয়া করতো। ১৯শে জানুয়ারির ব্রিগেডের সভা সফল করার উদ্দেশ্যে মঙ্গলকোটের লালডাঙ্গা মাঠে এদিন জনসভা করে মঙ্গলকোট ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস। সভায় মূল বক্তা ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। ছিলেন মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা, বীরভূম জেলা তৃণমূলের সম্পাদক রানা সিংহ, মঙ্গলকোট ব্লক তৃণমূল সভাপতি অপূর্ব চৌধুরী সহ অন্যান্যরা।

অনুব্রত এদিন মোদিকে তীব্র কটাক্ষ করে বলেন, তুমি চার বছরে কি করলে মানুষের সামনে বলো। আর বলো আমাদের ভোট দিন, আমরা এইসব করবো। কিন্তু মোদির কথা শুনলেই দেখবেন, খালি বলছে মা বেটা আর রাম মন্দির। এছাড়া তার কোনও ভাষা নেই। তাছাড়া মোদি তুমি একের পর এক প্রকল্প বন্ধ করে দিচ্ছো। তুমি পারবে না আমাদের আটকাতে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক চালিয়ে যাবে, সেইসমস্ত প্রকল্প। পাশাপাশি অনুব্রত দাবি করেন, দিল্লী দেখাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লী যেতে গেলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে যাবে। তা দেখিয়ে দেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন জানেন ? এইরকম সততার মুখ্যমন্ত্রী দেখা যায়না। মোদি তুমি নিজে চোর। আবার অন্যকে চোর বলছো।

অনুব্রত বামফ্রন্টকেও এদিন একহাত নিয়েছেন। তিনি বলেন, মঙ্গলকোটে ৩৪ বছরে, বামফ্রন্টের অত্যাচার মানুষের মনে আছে। সেই অত্যাচারের নায়ক হচ্ছে ফাল্গুনি মুখার্জী। কিন্তু আমরা অত্যাচার করতে আসিনি। মা মাটি মানুষের মুখ্যমন্ত্রী, কোনও অত্যাচারের জন্য নয়। মা মাটি মানুষের মুখ্যমন্ত্রী শুধু বলছেন মানুষের পাশে থাকুন। আর মানুষের উন্নয়ন করুন। তবেই মানুষ ভালো বাসবে।

এরপরই দলীয় প্রধান উপপ্রধানদের সতর্ক করে অনুব্রত বলেন, কোনও বাড়ির টাকা যানো কেউ না নেয়। নিলে, ছেড়ে কথা বলবো না। মানুষকে সম্মান দেবেন। মানুষের সাথে ভালো করে কথা বলবেন। তাদের কথা শুনবেন। কোনও মানুষকে ছিঃ ছিঃ করলে, আপনাদের ছাড়বো না বলে অনুব্রত হুশিয়ারী দেন। তিনি বলেন, আপনাকেও চেয়ার থেকে সরিয়ে দেব। কোনও গরিব মানুষের টাকা মারবেন না। দেখবেন তাহলেই, ঈশ্বর আল্লা আপনাদের দোয়া করবে।

সবশেষে অনুব্রত দাবি করেন, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে মঙ্গলকোটের মাটিতে ৬০ হাজার ভোটে জিতবেন। অনুব্রত বলেন, চুরি করবো না, কাউকে মারবো না। উর্বর জমি যেখানে থাকবে, পাঁচনের বারিতে সোজা করে দেব। তাছাড়া ১৯শে জানুয়ারি ব্রিগেডের সভায় ৫-৬ লক্ষ মানুষকে নিয়ে যাবেন বলেও জানিয়ে দেন অনুব্রত। এদিন অনুব্রত মঙ্গলকোটের প্রতিটি অঞ্চল সভাপতিদের নির্দেশ দেন, বুথ সভাপতিদের নিয়ে মাসে দুটো করে মিটিং করুন। কোনও বুথে হারব না আমরা। সব বুথ থেকেই আমাদের লিড চাই।

এছাড়াও চেক করুন

ব্লক সভাপতির অনুগামীর বাড়িতে বোম ও গুলি ছোড়ার অভিযোগ দিনহাটার বিধায়ক পন্থীদের বিরুদ্ধে

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ ব্লক সভাপতির অনুগামীর বাড়িতে বোম ও গুলি ছোড়ার অভিযোগ উঠল দিনহাটার বিধায়ক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.