Breaking News
Home >> Breaking News >> বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ নিয়ে এবার কড়া হতে চলেছে প্রশাসন

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ নিয়ে এবার কড়া হতে চলেছে প্রশাসন

নিজস্ব সংবাদদাতা, বর্ধমান: বারবার বিভিন্ন কারণে খবরের শিরোনামে থাকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। সম্প্রতি সামনে এসেছিল সরকারী নিয়ম অমান্য করে ব্লাড ব্যাঙ্ক থেকে প্রসেসিং ফি নেওয়ার বিষয়টি। যে বিষয় নিয়ে কালনার সভা থেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী।

এছাড়াও দালাল চক্র থেকে শুরু করে মাদক বা ডাক্তার নিগ্রহের মত হামেশাই ঘটে হাসপাতালে। সেই সব বিষয়গুলি আয়ত্বে আনার জন্য মাসে একবার করে প্রশাসনের সঙ্গে হাসপাতালের রিভিউ মিটিং করার প্রস্তাব দিলেন জেলাশাসক।
বুধবার জেলা প্রশাসনের বৈঠকে প্রথমেই স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা হয়। বর্ধমান হাসপাতাল নিয়ে বলতে দেওয়া হয় বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার তথা অনাময় হাসপাতালের সুপার অমিতাভ সাহাকে। তিনি সাম্প্রতিক নানা ঘটনা টেনে হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন। বৈঠকে উপস্থিত জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জী নিরাপত্তা বাড়ানোর কথা বলেন।

এরপর জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব, হাসপাতালের সমস্যা প্রতিমাসে একবার করে হাসপাতাল নিয়ে রিভিউ মিটিং করার কথা বলেন।একইসঙ্গে জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় জানান, ২৪ ঘন্টা মোবাইল ভ্যানের নজরে থাকবে বর্ধমান হাসপাতাল।

সম্প্রতি বর্ধমান হাসপাতালে মাদক খাইয়ে বেশ কয়েকটি প্রতারণার ঘটনা সামনে এসেছে। রক্ত সহ রোগীকে ফুঁসলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য দালাল চক্রের হদিশ মিলেছে। মুখ্যমন্ত্রীর জেলা সফরের আগে প্রকাশ্যে আসে রক্ত নিয়ে দুর্নীতি। ২০১৫ সালের সরকারী অর্ডার অমান্য করে ৫০ টাকা করে প্রসেসিং ফি নেওয়ার অভিযোগ ওঠে বর্ধমান হাসপাতালের বিরুদ্ধে। ওইদিন কালনার সভা থেকে যাদের কাছ থেকে ৫০ টাকা করে নেওয়া হয়েছে,তাদের টাকা ফেরতের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। নানা বিতর্কের পর এবার হাসপাতালের সমস্ত বিষয়ে নখ দর্পনে রাখতে চাইছে জেলা প্রশাসন। জেলাশাসক বৈঠক জানান, গোটা এক মাসের ঘটনা প্রবাহ নিয়ে একবার প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করুক হাসপাতাল কর্তিপক্ষ সেখানে নিরাপত্তা সহ নানা সমস্যা বা অভাব অভিযোগ নিয়ে আলোচনা হবে।
বর্ধমান হাসপাতালের ডেপুটি সুপার অমিতাভ সাহা জানান, পরিষেবা সহ নিরাপত্তা, পাবলিক এড্রেস সিস্টেম সহ নানা বিষয়ে অনেক সময় সমস্যা হয়। এই বিষয়গুলির সঠিক প্রয়োগের জন্য প্রতিমাসে জেলা প্রশাসন বৈঠক করতে চেয়েছেন। আমরা প্রশাসনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করব।কারণ কখনই পরিষেবার সঙ্গে আপোষ করা হবে না।

এছাড়াও চেক করুন

শুক্রবার থেকে বাতিল বর্ধমান হাওড়া লাইনের বহু ট্রেন

স্টিং নিউজঃ থার্ড লাইনের কাজ চলার জন্য শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বর্ধমান হাওড়া মেন শাখার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.