Breaking News
Home >> Breaking News >> ট্রেড ইউনিয়নের ডাকা বন্ধে মিশ্র প্রভাব ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে

ট্রেড ইউনিয়নের ডাকা বন্ধে মিশ্র প্রভাব ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে

সৈকত গাঙ্গুলী, ব্যারাকপুর: বামপন্থী ট্রেড ইউনিয়ন সহ দেশের বিভিন্ন ট্রেড ইউনিয়নের ডাকা আটচল্লিশ ঘণ্টার হরতালে মিশ্র প্রভাব পড়ল ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে।
ভোর ৬টা থেকে বিভিন্ন জায়গায় রেল এবং রাস্তা অবরোধ করে বামপন্থী নেতা কর্মীরা ।
রেল অবরোধ করা হয় কাঁচরাপাড়া, ইছাপুর, ব্যারাকপুর, খড়দহ ,আগরপাড়া, বেলঘরিয়া সহ শিয়ালদহ মেন লাইনে। এছাড়াও ঘোষপাড়া রোডের ব্যারাকপুর ও ইছাপুরের রাস্তা অবরোধ করা হয় এবং বিটি রোডে খড়দহে এবং সোদপুরে রাস্তা অবরোধ করে বাম নেতা কর্মীরা।
সমস্ত জায়গাতেই খানিকক্ষণ অবরোধ চলার পর পুলিশ অবরোধকারীদের তুলে দেয়। ব্যারাকপুরে মোট সতেরো জন বিক্ষোভকারীকে আটক করে টিটাগড় থানার পুলিশ ।
জুটমিল গুলোতেও সকাল থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। কোনো কোনো জুট মিলে শ্রমিক এলেও বহু জুট মিলে শ্রমিক উপস্থিতির সংখ্যা খুবই কম।

অপরদিকে হুকুমচাঁদ জুট মিল এবং নৈহাটি জুট মিল শ্রমিক না আসার জন্য বন্ধের নোটিস লাগিয়ে দেয় মিল কতৃর্পক্ষ সকালেই ।
বাম শ্রমিক সংগঠন সিআইটিইউ জেলা সম্পাদিকা গার্গী চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্য হরতাল পুরোপুরি সফল। শ্রমজীবী মানুষ এই হরতাল সফল করেছে। পথে যতই রাজ্যের শাসক দল পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে নামুক না কেন হরতাল মানুষ সর্বাত্মক ভাবে সমর্থন করেছে সেটা পথঘাট দেখেই বোঝা যাচ্ছে ।
সকাল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরাও পথে নেমেছেন নানা এলাকার রাস্তায় চলছে মিছিল।
তৃণমূল নেতা তথা ব্যারাকপুর পৌরসভার পৌরপ্রধান উত্তম দাস জানান, আমরা মিছিল করে মানুষকে আশ্বস্ত করছি। বন্ধে কোনও প্রভাব জনজীবনে পড়েনি। মানুষের মধ্যে যতটুকু ভয় ভীতি আছে তাও মানুষের মিছিল দেখে আশ্বস্ত হয়ে পথে নামছেন। তিনি আরও দাবি করেন যে হরতাল পুরোপুরি ব্যর্থ।

এছাড়াও চেক করুন

মুখ্যমন্ত্রীর পাঠানো নতুন বছরের শুভেচ্ছা বার্তায় আপ্লুত দিনহাটার খুদে পড়ুয়ারা

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ আচমকা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা বার্তার চিঠি পেয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.