Breaking News
Home >> Breaking News >> হুগলীর এক তৃনমূল নেতা ভবঘুরে মানুষকে নিয়ে এ কি করলো! হতবাক তৃনমূল নেতার কর্ম কান্ড

হুগলীর এক তৃনমূল নেতা ভবঘুরে মানুষকে নিয়ে এ কি করলো! হতবাক তৃনমূল নেতার কর্ম কান্ড

কমলেন্দু পোড়েল, খানাকুল, হুগলী:এলাকায় বেশ কিছু দিন থেকেই ঘোরা ফেরা করতে দেখা গিয়েছিলো এক মানষিক ভারসাম্যহীন ব্যেক্তিকে।পরনে সেই কবেকার ছেঁরা ময়লা জামাকাপর,উদাস চেহারাটার দিকে কারো তাকাবার সময় ছিলো না এমন ব্যাস্ততা জীবনে।তবে এমন চেহারায় ঘোরাফেরা করতে দেখে স্থির থাকতে পারেন নি খানাকুল উদনা গ্রামের বাসিন্দা সেখ সাকিম।

বুধবার দুপুরে বালিপুর বাজার এলাকায় ভবঘুরেকে দেখতে পেয়ে কিছু খাবার মিনারেল ওয়াটার সহ দুপুরের খাবার ব্যাবস্থা করে দিতে দেখে পথচলতি কিছু মানুষ এমন মানবিক ব্যবহারে বেশ আপ্লুত হয়ে যান।পরে এমন ঘটনার ছবি সোসাল মিডিয়ায় পোষ্ট হতেই ভাইরাল হয়ে যায় এলাকায়।এবং সাকিম এটি ফেসবুক পেজে পোষ্টও করেন।বর্তমানে তৃনমূল কংগ্রেসের এক সক্রীয় নেতা বলে বেশ পরিচিত মুখ।হাঁক ডাকে হাজারো লোক সমাবেশ করেও দেন,বেশ দাপুটে বলা যায়।এদিনের ওই নেতার এমন নরম মনের পরিচয় দেখে বাজার এলাকায় ভাবাবেগ হয়ে পরেন অনেকে।

হাজারো প্রশ্নের পরে ভবঘুরে উত্রপ্রদেশ এর কোন যায়গায় থাকেন বলে জানা গেছে। এবিষয়ে সেখ সাকিমের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে বলেন”বাজার এলাকায় দেখে আমি আমার মত কিছু করেছি মাত্র,শিত বস্ত্র দুপুরের খাবার খেতে কিছু টাকাও দেন বলে জানান। তবে সাকিমের এমন মানবিক ব্যবহার নতুন নয় বলে জানান খানাকুল বালিপুরের বাসিন্দা সামসের আলম ও নুর মহম্মদ,সরজিৎ রা।

বলেন এলাকায় দুস্থ্য মানুষের পাশে বিভিন্নভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন ওই নেতা,বর্তমানে ওনার স্ত্রী পঞ্চায়েত উপপ্রধান নেতা হিসাবেও ভালো নাম আছে।ওনার পরিবার বেশ দান ধ্যান করেন,আরো বলেন সত্যি যদি এমন দরদি মানুষ এমন নেতা থাকেন মানুষ তাদের দূঃখ কষ্ট কিছুটা হলেও ভুলতে পারে।শেষ পাওয়া খবরে কয়েকশো টাকা দিয়ে হাওড়া থেকে উত্তরপ্রদেশ গামি ট্রেনে চাপিয়ে বাড়ির উদ্যেশ্য পাঠানো হয়েছে ওই ব্যেক্তিকে।হয়তো সাকিমের ফেসবুকের দৌলতে ভবঘুরে ফিরে পাবে তার পরিবারকে সেদিন হয়তো বা মনে পরলেও পরতে পারে এই উদনা গ্রামের এই মানুষটিকে সবই উপরওয়ালার হাতে।

এছাড়াও চেক করুন

সূবর্নরেখা মহাবিদ্যালয়ে পালিত হল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ঝাড়গ্রাম:- একুশে ফেব্রুয়ারি জনগণের কাছে একটি গৌরবোজ্জ্বল দিন। এটি শহীদ দিবস ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.