তুফানগঞ্জে করোনা আক্রান্তের পরিবারের লোকজনেরা হাটে-বাজারে ঘুরে বেড়ানোর অভিযোগ

Advertisement

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ করোনা আক্রান্তের পরিবারের লোকজনেরা হাটে বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশীদের সাথে বিরোধে জড়ালেন এক কোভিড পজেটিভ পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের নাককাটি গাছ গ্রাম পঞ্চায়েতের দ্বীপড়পার এলাকায়।

Advertisement

এই সমস্যা সমাধানে জন্য স্থানীয় বাসিন্দারা তুফানগঞ্জ-১ ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের দ্বারস্থ হয়েছেন। তারপরেই কঠোর হাতে পরিস্থিতি সামলালেন ব্লক প্রশাসন। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, করোনা আক্রান্তের পরিবারের লোক কোনও নিয়ম না মেনে বাজারে চলে এসেছিলেন। বিষয়টি কোনও ভাবেই মেনে নিতে চাননি তাঁরা। প্রতিবাদ করতেই পুলিশ প্রশাসনের ভয় দেখাতে শুরু করেন তিনি। এরপরেই বচসা শুরু হয়।

ব্লক প্রশাসনকে বিস্তারিত জানানোর পর তিনি করোনা আক্রান্তর পরিবারকে বাড়িতেই থাকার নির্দেশ দেন। করোনা আক্রান্তর পরিবারের এক সদস্য বলেন, সামান্য জ্বর থাকায় মহিলাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। করোনা পজিটিভ সম্পর্কিত বিষয়ে ব্লক প্রশাসন আমাদের এখনো কিছু জানায় নি। স্থানীয় একটি বাজারে গিয়েছিলেন, তবে এলাকার কিছু লোকজন প্রতিবাদ করলে আমরা বাড়িতে ফিরে আসি।

Advertisement

এই বিষয়ে তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের বিডিও অফিসের এক আধিকারিক জানান, করোনা আক্রান্তদের সেফ হোমে পাঠানোর পর, যারা এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিলেন তাঁদের বাড়িতেই থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্য এলাকার বিষয়গুলিও খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার নাককাটি গাছ গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে বেশকয়েক জনের সোয়াব টেষ্ট করানো হয়। র্যা পিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষাও করা হয়। এতে দুজনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তাঁদের বাড়ি চামটা গ্রামের ব্যাপারীপাড়া এবং দ্বীপড়পার গ্রামের দ্বীপড়পার এলাকায়।

দ্বীপড়পার এলাকার ওই করোনা পজিটিভ মহিলা স্বাস্থ্যকর্মী এবং তার স্বামী নাককাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের কর্মচারী। দুজন করোনা পজিটিভ রোগীর সন্ধান পেয়েই ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুটি এলাকাকে কন্টেনমেন্ট জোন ঘোষণা করা হয়। এদিকে দ্বীপড়পার এলাকার করোনা পজিটিভ রোগীর স্বামী বাড়ি থেকে বেরিয়ে স্থানীয় বাজারে চলে আসেন। বাজারে আসতেই তাঁকে বাড়িতে ফিরে যেতে বলেন স্থানীয়রা। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে বচসা শুরু হয়। শেষে দুপক্ষই বিডিওকে সবিস্তারে জানান। বিডিও ওই ব্যক্তিকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

Advertisement